বিজ্ঞাপন
বিয়ের পোশাক কেনার আগে

'বিয়ে' শব্দটা শুনে সবার আগে যে বিষয়টা মাথায় আসে, তা হলো ‘কী পরব?’ বিয়ের দিন বলে কথা। বর–কনের ইচ্ছায় সন্ধান শুরু হয় বিয়ের পোশাক কেনার। তবে বিয়ের নিখুঁত পোশাক খুঁজে পাওয়া যতটা সহজ মনে হয়, ততটা নয়। পোশাকের নকশা থেকে শুরু করে কাপড় নির্বাচন, সঠিক দোকান থেকে সেই পোশাককে ফিট করা পর্যন্ত কেনাকাটার পুরো প্রক্রিয়া একটি কঠিন অভিজ্ঞতার সামনে দাঁড় করায়। তবে প্রক্রিয়াকে একটু সহজ করে তুলতে কিছু প্রয়োজনীয় টিপস অনুসরণ করতে হবে।

বিয়ের পোশাক কেনার আগে

বাজেট সেট করা

সবার আগে বিয়ের বাজেট ঠিক করতে হবে। কোন নির্দিষ্ট পোশাকে কত খরচ করতে হচ্ছে তা আগে থেকেই খোঁজ নিতে হবে। এটা সাধারণ কেনাকাটার ক্ষেত্রেও জীবনকে সহজ করে তোলে। একবার বাজেট ঠিক হয়ে গেলে সব সহজ হয়। বিয়ের পোশাকের গুণমান ও দামের দিক থেকে আলাদা একটি বাজেট তৈরি করতে পারলে অতিরিক্ত ব্যয় কমাতে সহায়তা করবে।

বিয়ের পোশাক কেনার আগে

দোকান খোঁজা
প্রথমে পছন্দসই পোশাকের সন্ধানে যে দোকানগুলোতে যাওয়া যেতে পারে, তা গবেষণা করে একটি তালিকা বানাতে হবে। এবার নিজের শহরে বা অন্য কোথাও ভ্রমণের সম্ভাবনা থাকলে সেখানেও খুঁজতে হবে। নিশ্চিতভাবেই কারও পক্ষে এক দিনে ২০টি দোকানে যাওয়ার সময় ও শক্তি থাকে না। হাতে সময় কম থাকলে বিশ্বস্ত অনলাইন স্টোর থেকেও খোঁজ নেওয়া যেতে পারে। এখন অনলাইনেই সব পাওয়া যায়।

বিজ্ঞাপন

আরামদায়ক কাপড় বাছাই করা

পোশাকের ক্ষেত্রে আরামকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত। মাথায় রাখতে হবে, বিয়ের পোশাক পরে আপনি শুধু বসে থাকবেন না। খাওয়া থেকে শুরু করে নাচ-গান, হাঁটা সবই বিয়ের অংশ। তাই পোশাকের কাপড় অত্যন্ত যত্ন সহকারে চিন্তাভাবনা করে বেছে নেওয়া  প্রয়োজন।

বিয়ের পোশাক কেনার আগে

ঋতু বুঝে পোশাক নির্বাচন

জলবায়ু বা ঋতু বুঝে বিয়ের পোশাক বেছে নিতে হবে। বিয়ের দিন ঋতু অনুসারে পোশাক না পরলে সমস্যা হতে পারে। শেরওয়ানি, লেহেঙ্গা, স্যুটের মতো পোশাক সব ঋতুতে মানানসই না। গ্রীষ্মকালে ভারী কাপড় এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয় কারণ, এটি অস্বস্তির কারণ হতে পারে। আবার শীতের মৌসুমে হালকা কাপড় বেছে নেওয়াও স্মার্ট চয়েজ নয়। তাই, বিয়ে যে ঋতু ও আবহাওয়ায় হবে, সেই অনুযায়ী পোশাক বেছে নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

আগে থেকেই প্রস্তুতি শুরু করা

মনে রাখতে হবে যে বিয়ের পোশাক যেমন শেরওয়ানি, স্যুট, কুর্তা, লেহেঙ্গা ইত্যাদি সব সময় ফিট নাও হতে পারে। অনেকে দর্জির কাছে বানিয়ে নেয় বিয়ের পোশাক। তাই এর জন্য আগে থেকেই সময় রাখা উচিত; যেন শেষ সময়ে তাড়াহুড়া না হয়।

বিয়ের পোশাক কেনার আগে

শরীরের ধরন ও স্কিনটোন বুঝে পোশাক নির্বাচন

পোশাক সব সময় শরীরের মাপ ও রং বুঝে কিনলে মানানসই হবে। এর জন্য কিছুটা গবেষণারও প্রয়োজন। কোন রঙের পোশাক আপনার ত্বকের সঙ্গে যাবে, কোন পোশাকের প্যাটার্ন আপনার শরীরের গড়নের সঙ্গে খাপ খাবে, তা ভেবে নিতে হবে আগেই । অবশ্যই পারফেক্ট বডি সাইজ অনুসারে কিনতে হবে বিয়ের জামা।

ছবি: হাল ফ্যাশন ও পেকজেলসডটকম

প্রকাশ: ২২ জানুয়ারি ২০২৩, ১২: ৪১
বিজ্ঞাপন
হাল ফ্যাশন